স্বাধীনতা পদকে ভূষিত হয়েছেন সিরাজ উদ্দিন আহমেদ

লেখক: সকাল বেলা ডেস্ক
প্রকাশ: ১১ মাস আগে

মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে অসামান্য অবদান রাখার জন্য স্বাধীনতা পদকে ভুষিত হলেন বরণ্য ইতিহাসবিদ, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্টে বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রতিবাদকারী একমাত্র সরকারী পদস্থ কর্মকর্তা, শিক্ষাবিদ সাবেক অতিরিক্ত সচিব, সিরাজ উদ্দীন আহমেদ।

তিনি বরগুনা মহাকুমা প্রশাসক থাকাকালীন সময় স্বাধীনতা যুদ্ধে মহান ভূমিকা রেখেছিলেন। এসময় তিনি বরগুনা বীর মুক্তিযোদ্ধা

মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. জিল্লুর রহমান চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সিরাজ উদ্দীন আহমেদ ১৯৪১ সালের ১৪ অক্টোবর বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার আরজি কালিকাপুর গ্রামে জন্মগ্রহন করেন। তার পিতার নাম জাহান উদ্দীন ফকির, মাতা লায়লী বেগম।

মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময় তিনি বরগুনা মহাকুমার প্রশাসক হিসাবে কর্মরত ছিলেন। স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় বরগুনার বীর মুক্তিযোদ্ধাদের তিনি সংগঠিত করার পাশাপাশি সকল পরিকল্পনা ও নির্দেশনা প্রেরণ করতেন। এজন‍্য পাকিস্তান মেলেটারী তাকে হত‍্যা করার চেষ্টাও করেছিলেন।

মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে অসামান্য অবদান এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে হত‍্যার পরে একমাত্র প্রতিবাদকারী পদস্থ হিসাবে সাহসী সৎ বীর কে সর্বোচ্চ পদক স্বাধীনতা ২০২২ ভূষিত হওয়ায় বরগুনাবাসীর পক্ষ থেকে বিনম্র শ্রদ্ধা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন বরগুনাবাসীর পক্ষে বরগুনা জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা জাতীয় সংসদের মৎস ও প্রানী সম্পদ বিষয়ক সম্পর্কিত স্হায়ী কমিটির সভাপতি এডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু এমপি।

ইতিহাসবিদ ও মুক্তিযুদ্ধের অবদান স্বরুপ স্বাধীনতা পদক ২০২২ ভুষিত হওয়ায় বরগুনা জেলা আজ গর্বিত।